ফ্রি টাকা ইনকাম করার 7টি সহজ পদ্ধতি

Trulli

ফ্রি টাকা ইনকাম করতে চাইলে এই আর্টিকেলটি মনোযোগ সহকারে পড়ুন। কারণ আজকে আমি আপনাদেরকে দেখাবো কিভাবে আপনারা ফ্রিতে 7টি মাধ্যমে টাকা ইনকাম করতে পারবেন।

প্রযুক্তি উন্নত হওয়ার ফলে সবকিছু এখন অনলাইন ভিত্তিক হয়ে গেছে। যেমন আমরা অনলাইন থেকে আমাদের যাবতীয় প্রতিদিনের চাহিদা পূরণ করতে পারি। ট্যাক্সি ভাড়া করা থেকে শুরু করে খাবার অর্ডার।

বর্তমানে অনলাইন থেকে ফ্রি টাকা ইনকাম করা অনেক সহজ। আজকের লেখাটিতে অনলাইন থেকে ফ্রি টাকা ইনকামের 7টি পদ্ধতি সম্পর্কে আলোচনা করব। কিভাবে ইনভেস্টমেন্ট ছাড়া ফ্রিতে টাকা ইনকাম করতে পারবেন,  এ সম্পর্কে বিস্তারিত আলোচনা করা হবে।

ফ্রি টাকা ইনকাম সত্য কি সম্ভব?

ফ্রি টাকা ইনকাম সম্ভব, তবে এর জন্য আপনাকে সঠিক গাইডলাইন অনুযায়ী কাজ করতে হবে। আপনি যদি অপরিচিত সাইটে কাজ করেন এবং অনলাইনে ইনকামের সঠিক গাইডলাইন ফলো করেন, তাহলে অবশ্যই টাকা ইনকাম করতে পারবেন না।

যদিও এখন অনেক ওয়েবসাইট ফ্রিতে টাকা ইনকাম করার সুযোগ দিচ্ছে। তবে এই ওয়েবসাইটে কতদিন থাকে, এটাই দেখার বিষয়। কারণ এই ওয়েবসাইটগুলো আপনি সব সময় খুঁজে পাবেন না।

সুতরাং ফ্রিতে টাকা ইনকামের জন্য আপনাকে যেকোনো একটি কাজ শিখতে হবে, যার মাধ্যমে আপনি নিয়মিত টাকা ইনকাম করতে পারবেন।

ফ্রিতে টাকা ইনকাম করার পদ্ধতি আপনার কাছে অনেক কঠিন মনে হতে পারে। তবে ফ্রিতে টাকা ইনকাম করা সহজ। আপনি শুরু করলে অনেক সহজ হয়ে যাবে।

যেমন আমিও এখন ফ্রিতে টাকা ইনকাম করছি। বাংলাদেশ থেকে আপনি এরকম অনেক কাজ করতে পারবেন, যার মাধ্যমে আপনি ফ্রিতে টাকা ইনকাম করতে পারবেন। এর জন্য আপনাকে সঠিক নিয়ম অনুযায়ী কাজ করতে হবে।

টাকা ইনকাম করার 7টি মাধ্যম আজকে আমি আলোচনা করব। ফ্রি টাকা ইনকাম করার পদ্ধতি গুলো  ভালভাবে পড়ুন।

ফ্রি টাকা ইনকাম করার 7টি পদ্ধতি

ফ্রি টাকা ইনকাম করার 7টি নির্ভরযোগ্য মাধ্যম নিয়ে আমি নিচে আলোচনা করেছি। নিচের 7টি মাধ্যমে কাজ করতে হলে, অবশ্যই আপনাকে কাজ শিখতে হবে। অন্যথায় আপনি টাকা ইনকাম করতে পারবেন না।

তো চলুন ফ্রিতে টাকা ইনকাম করার মাধ্যম সম্পর্কে বিস্তারিত আলোচনা করা যাক।

লেখালিখি করে ফ্রি টাকা ইনকাম

আপনি যদি লেখালেখি করতে পছন্দ করেন, তাহলে আপনি কন্টেন্ট রাইটিং করে ফ্রিতে টাকা ইনকাম করতে পারবেন। এর জন্য আপনাকে কোন ইনভেস্টমেন্ট করতে হবে না। এখন প্রশ্ন হতে পারে আপনি কোথায় লেখালেখি করে ইনকাম করবেন?

আপনি যদি ইংরেজি লিখতে পারেন, তাহলে আপনি ফ্রিল্যান্সিং মার্কেটপ্লেস থেকে লেখালেখির অনেক কাজ পেয়ে যাবেন। যেমন: ফাইবার অথবা আপওয়ার্ক। আপনি যদি বাংলা লেখালেখি করতে চান, তাহলে অবশ্যই ফেসবুক অথবা বিভিন্ন ওয়েবসাইটের কাজ খুজতে হবে।

ফেসবুক গ্রুপে আপনি অনেক চাকরি পেয়ে যাবেন, যদি আপনার লেখার কোয়ালিটি ভালো হয়ে থাকে। ফেসবুক গ্রুপের যদি আপনি চাকরি না পায়, তাহলে আপনি আমার সাথে যোগাযোগ করুন। আমি আপনাকে লেখার জন্য টাকা পেমেন্ট করব।

অবশ্যই আপনার লেখার গুণমান ভালো হতে হবে। অন্যদের দেখে হুবহু কপি করা লেখা চলবে না। 1000 শব্দের একটি বাংলা আর্টিকেলের জন্য আপনি 80 থেকে 100 টাকা পেতে পারেন।

ব্লগিং করে ফ্রি টাকা ইনকাম:

আপনার যদি লেখালেখি করার অভ্যাস থাকে, তাহলে আপনি ফ্রিতে একটি ব্লগ সাইট তৈরি করে সেখানে লেখালেখি করে ইনকাম করতে পারবেন। ফ্রিতে একটি ব্লগ সাইট তৈরি করা খুবই সহজ। আপনি blogger.com এর সাহায্যে ফ্রিতে একটি ওয়েবসাইট তৈরি করতে পারবেন।

বর্তমানে ব্লগিং হলো ফ্রি টাকা ইনকাম করার সেরা মাধ্যম।  ব্লগিং করে আপনি মাসে লক্ষ টাকা ইনকাম করতে পারবেন।  সর্বপ্রথম আপনার একটি ব্লগ তৈরি করতে হবে। এর জন্য আপনি blogger.com ব্যবহার করতে পারেন। তারপর সেই ব্লগ টি সুন্দর করে সাজিয়ে সেখানে লেখালেখি করুন।

একটি ওয়েবসাইট তৈরি করতে ডোমেইন এবং হোস্টিং প্রয়োজন হয়। তবে আপনি blogger.com এ ফ্রিতে একটি ডোমেইন এবং হোস্টিং পেয়ে যাবেন।

যখন আপনার সাইটটি তৈরি হবে, তখন আপনি গুগল এডসেন্স অথবা অন্য কোনো এক নেটওয়ার্কের আবেদন করুন। আপনার সবকিছু ঠিকঠাক থাকলে, তাহলে আপনার ওয়েবসাইট মনিটাইজ হয়ে যাবে।

ইউটিউবে ভিডিও তৈরি করে টাকা ইনকাম

ইউটিউব ভিডিও তৈরি করে ইনকাম করা যায়, আমরা সকলেই জানি। কারণ ইউটিউব থেকে ইনকাম করে বাংলাদেশের অনেকেই স্বাবলম্বী হয়েছে। ইউটিউবে ভিডিও তৈরি করে ইনকাম করতে গেলে আপনার একটি মোবাইল ফোন থাকতে হবে। এবং আপনার ইন্টারনেট কানেকশন থাকতে হবে।

তারপর আপনি যে ক্যাটাগরির উপর ভিডিও তৈরি করবেন, সেই ক্যাটাগরি উপর রেগুলার ভিডিও তৈরি করতে থাকুন। ভিডিও তৈরি করার সময় খেয়াল রাখবেন আপনার ভিডিওর সাউন্ড এবং ভিডিও কোয়ালিটি যেন ভাল হয়।

নিয়মিত ভিডিও ছাড়ার পর অবশ্যই আপনার ভিডিওগুলো অন্যরা দেখতে থাকবে। এতে যখন আপনার 1000 সাবস্ক্রাইবার এবং 4000 ঘন্টা পূরণ হবে, তখন আপনি ইউটিউব মনিটাইজেশন করার জন্য আবেদন করতে পারেন।

আর একবার মনিটাইজেশন করতে পারলেই আপনার ভিডিও যারা দেখতে আসবে, তাদেরকে এড  দেখিয়ে টাকা ইনকাম করতে পারবেন। অনেকেই তার স্মার্টফোন ব্যবহার করে ইউটিউব ভিডিও তৈরি করে সফলতা পেয়েছে। সুতরাং আপনি কেন পাবেন না?

মাইক্রো-জব কাজ করে  টাকা ইনকাম

আপনি মাইক্রো-জব সাইটগুলোতে কাজ করে টাকা ইনকাম করতে পারবেন। এর জন্য আপনাকে কোন টাকা ইনভেস্টমেন্ট করতে হবে না। আপনি সম্পূর্ণ ফ্রিতে মাইক্রো-জব সাইটগুলোতে কাজ করতে পারবেন।

মাইক্রো-জব সাইটগুলোর মধ্যে সবচেয়ে জনপ্রিয় সাইট হচ্ছে মাইক্রোওয়ার্কারস। মাইক্রো-জব সাইটে আপনি কাজ করে ইনকাম করতে পারবেন। তবে মনে রাখবেন যে সময় ব্যায় করে মাইক্রো-জব সাইটগুলোতে কাজ করে আপনি যত টাকা ইনকাম করবেন। সেই সময় যদি আপনি ব্লগিং অথবা ইউটিউব এর পিছনে ব্যয় করেন। তাহলে তার দশগুণ বেশি টাকা ইনকাম করতে পারবেন।

 এখন সিদ্ধান্ত নিন আপনি কোনটা শুরু করবেন

ফ্রিল্যান্সিংয়ের ছোট কাজ করে টাকা ইনকাম

ফ্রিল্যান্সিং করে টাকা ইনকাম করা যায় আমরা সকলেই জানি। তবে ফ্রিল্যান্সিং শিখতে হলে আমাদের অনেক সময় ব্যয় হয়। আপনি কি জানেন ফ্রিল্যান্সিংয়ের ছোট একটি ক্যাটাগরিতে কাজ করে আপনি টাকা ইনকাম করতে পারবেন!

ফ্রিল্যান্সিংয়ের এরকম অনেক ছোট ছোট কাজ আছে, সেই কাজগুলো আপনি খুব সহজেই শিখতে পারেন এবং সেই কাজগুলো শিখে আপনি ফাইবার মার্কেটপ্লেস থেকে টাকা ইনকাম করতে পারবেন।

ছোট ছোট কাজ করে ফ্রিতে টাকা ইনকাম করার জন্য ফাইবার মার্কেটপ্লেস হচ্ছে অন্যতম। এই মার্কেটপ্লেসে আপনি খুব সহজেই এবং দ্রুত কাজ পাবেন।

এফিলিয়েট মার্কেটিং করে টাকা ইনকাম

এফিলিয়েট মার্কেটিং হল ফ্রিতে টাকা ইনকাম করার অন্যতম মাধ্যম। আপনার যদি একটি ইউটিউব অথবা একটি ব্লগ সাইট থাকে, তাহলে সেই ব্লগ সাইটের মাধ্যমে এফিলিয়েট মার্কেটিং করে আপনি প্রচুর টাকা নিয়ে ঘুরতে পারবেন।

 সেই ব্লগ অথবা ইউটিউব চ্যানেলের এডসেন্স থেকে ইনকাম করবে নি এর পাশাপাশি আপনি এফিলিয়েট করে ইনকাম করতে পারবেন। তবে এর জন্য আপনার দরকার অনেক বেশি অডিয়েন্স। বাংলাদেশের অনেকেই ফ্রিতে এফিলিয়েট মার্কেটিং করে স্বাবলম্বী হয়েছে। সুতরাং আপনি কেন পারবেন না?

ছবি বিক্রি করে টাকা ইনকাম

আপনার কাছে যদি ভালো মানের একটি স্মার্টফোন থাকে অথবা একটি ক্যামেরা থাকে, তাহলে আপনি ছবি বিক্রি করে টাকা ইনকাম করতে পারবেন। এর জন্য আপনাকে ছবি তোলার দক্ষতা অর্জন করতে হবে।

বিভিন্ন ছবি তুলে আপনি সেগুলো অনলাইনে বিক্রি করতে পারেন এবং সেই  ছবিগুলো বিক্রি করার মাধ্যমে আপনি টাকা ইনকাম করতে পারবেন। তবে মনে রাখবেন যেহেতু আপনি ইন্টারন্যাশনাল প্লাটফর্মে ছবি বিক্রি করছেন সুতরাং আপনার ছবি অবশ্যই ভালো হওয়া উচিত।

অন্যথায় আপনি বেশি বিক্রি করতে পারবেন না এবং বেশি টাকা ইনকাম করতে পারবেন না। ছবি বিক্রি করার ওয়েবসাইট গুলো সম্পর্কে জানতে হলে আপনি গুগলে গিয়ে সার্চ দিন অথবা আপনি যেকোনো একটি ভিডিও দেখুন।

সোশ্যাল মিডিয়া থেকে টাকা ইনকাম

ফ্রিতে টাকা ইনকাম করার  করার জন্য সোশ্যাল মিডিয়া অন্যতম। আপনার যদি সোশ্যাল মিডিয়া সম্পর্কে যথেষ্ট জ্ঞান থাকে এবং আপনি যদি social-media ম্যানেজমেন্ট ভালোভাবে করতে পারেন, তাহলে আপনি সোশ্যাল মিডিয়া ম্যানেজমেন্ট এর কাজ করে ইনকাম করতে পারবেন।

সোশ্যাল মিডিয়া ম্যানেজমেন্ট সম্পর্কিত  কাজ আপনি upwork মার্কেটপ্লেসে পেয়ে যাবেন। আর যদি আপনি সোশ্যাল মিডিয়া মার্কেটিং ভালোভাবে করতে পারেন, তাহলে আপনি ফাইবার সোশ্যাল মিডিয়া মার্কেটিং এর অনেক কাজ পেয়ে যাবেন। তবে এর জন্য সর্বপ্রথম আপনাকে সোশ্যাল মিডিয়া মার্কেটিং কাজ শিখতে হবে।

ফ্রি টাকা ইনকাম শেষ কথা

ফ্রি টাকা ইনকাম করার অনেকগুলো মাধ্যম সম্পর্কে আলোচনা করেছি। আপনার কাছে যেটা ভালো মনে হয়, আপনি সেটা শুরু করতে পারবেন। তবে মনে রাখেন ফ্রিতে টাকা ইনকাম করার জন্য সবচেয়ে ভাল মাধ্যম হচ্ছে ব্লগিং ইউটিউব এরপরে রয়েছে ফ্রিল্যান্সিং।

ব্লগিং এবং ইউটিউব থেকে আপনি অনেক বেশি টাকা ইনকাম করতে পারবেন খুব কম পরিশ্রম করে। তবে অন্যান্য কাজ করে ইনকাম করতে গেলে আপনাকে অনেক বেশি পরিশ্রম করতে হবে এবং কাজ শিখতে হবে।

টাকা ইনকাম সম্পর্কে আপনার যদি কোন প্রশ্ন অথবা পরামর্শ থাকে, তাহলে অবশ্যই কমেন্ট করে জানাতে পারেন। আমি অবশ্যই আপনার কমেন্টে গুরুত্বসহকারে পড়াব এবং উত্তর দেওয়ার চেষ্টা করব।

এরকম অনলাইন টিপস এবং ট্রিকস রেগুলার আপডেট পেতে অবশ্যই আমার এই ওয়েবসাইটে সাথেই থাকুন। আর্টিকেলটি সম্পন্ন করার জন্য অসংখ্য ধন্যবাদ।

Url Ki
Author: Url Ki

It's urlki

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Ads Blocker Image Powered by Code Help Pro

Ads Blocker Detected!!!

We have detected that you are using extensions to block ads. Please support us by disabling these ads blocker. Thanks

Powered By
Best Wordpress Adblock Detecting Plugin | CHP Adblock
Scroll to Top