ইমেইল তৈরি করা শিখুন: ইমেইল ঠিকানা কি এবং তার ব্যবহার

ইমেইল ঠিকানা (Email Address) হল একটি ইলেকট্রনিক ঠিকানা যার মাধ্যমে ইন্টারনেট ব্যবহার করে বার্তা (মেসেজ) প্রেরণ এবং গ্রহণ করা যায়। এটি একটি ইউনিক ঠিকানা যা প্রেরকের এবং প্রাপকের সনাক্তকরণের জন্য ব্যবহৃত হয়।

ইমেইল ঠিকানা সাধারণত দুটি প্রধান অংশে বিভক্ত থাকে: ব্যবহারকারীর নাম (Username) এবং ডোমেইন নাম (Domain Name)। এই দুটি অংশ ‘at’ চিহ্ন (@) দ্বারা পৃথক করা হয়। উদাহরণস্বরূপ, [email protected] একটি ইমেইল ঠিকানা যেখানে ‘user’ হল ব্যবহারকারীর নাম এবং ‘example.com’ হল ডোমেইন নাম।

ইমেইল আমাদের দৈনন্দিন জীবনের একটি অপরিহার্য অংশ হয়ে উঠেছে। ইমেইল তৈরি করা এবং এর সঠিক ব্যবহার জানা থাকলে আমরা অনেক সুবিধা পেতে পারি এবং বিভিন্ন কার্যক্রম সহজে সম্পন্ন করতে পারি।

ইমেইল কি?

ইমেইল ঠিকানা
ইমেইল কি?

ইমেইল বা ইলেকট্রনিক মেইল হল ইন্টারনেটের মাধ্যমে বার্তা প্রেরণ এবং গ্রহণ করার একটি আধুনিক ও জনপ্রিয় মাধ্যম। এটি প্রচলিত চিঠিপত্রের ডিজিটাল রূপ যা খুব দ্রুত সময়ের মধ্যে দূরত্বের বাঁধা ছাড়িয়ে বার্তা পৌঁছে দেয়। ইমেইল ব্যবহার করে আমরা বার্তা, ফাইল, ছবি এবং ভিডিও শেয়ার করতে পারি।

ইমেইল ঠিকানা কি?

ইমেইল ঠিকানা হল ইমেইল প্রেরণ এবং গ্রহণ করার জন্য ব্যবহৃত একটি অনন্য ঠিকানা। এটি মূলত দুটি অংশে বিভক্ত:

  1. ইউজারনেম (ব্যবহারকারীর নাম)
  2. ডোমেইন নাম

একটি সাধারণ ইমেইল ঠিকানা দেখতে যেমন হয়: [email protected]

  • ইউজারনেম: এটি ব্যবহারকারীর পছন্দ অনুসারে নির্ধারিত হয়। যেমন: urlki
  • ডোমেইন নাম: এটি ইমেইল সার্ভিস প্রোভাইডারের ডোমেইন। যেমন: gmail.com, yahoo.com

উদাহরণস্বরূপ, [email protected] একটি সম্পূর্ণ ইমেইল ঠিকানা যেখানে urlki হল ইউজারনেম এবং gmail.com হল ডোমেইন নাম।

আরো পড়ুন:

ইমেইল ঠিকানা দিয়ে কি করে?

একটি ইমেইল ঠিকানা দিয়ে নিম্নলিখিত কাজগুলো করা যায়:

  1. বার্তা প্রেরণ ও গ্রহণ: এক ব্যক্তি থেকে আরেক ব্যক্তি বা গ্রুপের মধ্যে বার্তা বিনিময় করা।
  2. ফাইল সংযুক্ত করা: ডকুমেন্ট, ছবি, ভিডিও ইত্যাদি সংযুক্ত করে পাঠানো।
  3. সাবস্ক্রিপশন ও নোটিফিকেশন: বিভিন্ন ওয়েবসাইট ও সেবা থেকে তথ্য ও আপডেট পাওয়া।
  4. অনলাইন অ্যাকাউন্ট তৈরি: বিভিন্ন অনলাইন সেবা ও ওয়েবসাইটে নিবন্ধন করা।
  5. ব্যবসায়িক যোগাযোগ: অফিসিয়াল এবং ব্যবসায়িক বার্তা আদানপ্রদান।

ইমেইল কিভাবে তৈরি করতে হয়

ইমেইল ঠিকানা তৈরি করার জন্য নিম্নলিখিত ধাপগুলো অনুসরণ করতে হয়:

  1. ইমেইল সার্ভিস প্রোভাইডার নির্বাচন করা: বিভিন্ন ইমেইল সার্ভিস প্রোভাইডার আছে যেমন: Gmail, Yahoo Mail, Outlook ইত্যাদি। প্রথমে আপনার পছন্দের একটি প্রোভাইডার নির্বাচন করুন।
  2. নিবন্ধন পৃষ্ঠা খোলা: প্রোভাইডারের ওয়েবসাইটে গিয়ে নিবন্ধন বা সাইন আপ পৃষ্ঠায় যান। উদাহরণস্বরূপ, Gmail এর জন্য Gmail Sign Up
  3. ব্যক্তিগত তথ্য পূরণ করা: নিবন্ধন ফর্মে আপনার নাম, ইউজারনেম, পাসওয়ার্ড, জন্ম তারিখ, লিঙ্গ ইত্যাদি তথ্য পূরণ করুন।
  4. ইউজারনেম নির্বাচন: একটি অনন্য ইউজারনেম নির্বাচন করুন। যদি আপনার পছন্দের ইউজারনেম পাওয়া না যায়, তবে প্রোভাইডার কিছু বিকল্প সুপারিশ করবে অথবা আপনি নিজে অন্য ইউজারনেম পছন্দ করতে পারেন।
  5. পাসওয়ার্ড তৈরি করা: একটি শক্তিশালী পাসওয়ার্ড তৈরি করুন যা অক্ষর, সংখ্যা এবং বিশেষ চিহ্নের সমন্বয়ে গঠিত।
  6. বৈধতা যাচাই করা: নিবন্ধনের পরে প্রোভাইডার আপনাকে একটি যাচাই কোড পাঠাতে পারে যা আপনাকে ইমেইল বা ফোনের মাধ্যমে যাচাই করতে হবে।
  7. নিবন্ধন সম্পন্ন করা: সমস্ত তথ্য সঠিকভাবে পূরণ করার পরে, সাবমিট বা সাইন আপ বোতামে ক্লিক করুন। আপনার ইমেইল ঠিকানা তৈরি হয়ে যাবে।

উদাহরণ হিসেবে Gmail এ ইমেইল তৈরি করার ধাপ

  1. Gmail এর ওয়েবসাইটে যান: Gmail Sign Upনিবন্ধন ফর্ম পূরণ করুন:
  • আপনার প্রথম এবং শেষ নাম লিখুন।
  • একটি ইচ্ছামতো ইউজারনেম নির্বাচন করুন।
  • একটি শক্তিশালী পাসওয়ার্ড তৈরি করুন এবং পুনরায় লিখুন।

2. আগের পৃষ্ঠা থেকে অব্যাহত রাখুন: “Next” বোতামে ক্লিক করুন।

3. যোগাযোগের তথ্য দিন: আপনার ফোন নম্বর এবং বিকল্প ইমেইল ঠিকানা (যদি থাকে) দিন। এই ধাপটি ভেরিফিকেশনের জন্য প্রয়োজন।

4. জন্ম তারিখ ও লিঙ্গ নির্বাচন করুন: আপনার জন্ম তারিখ এবং লিঙ্গ নির্বাচন করুন।

5. নিবন্ধন সম্পন্ন করুন: সমস্ত তথ্য সঠিকভাবে পূরণ করার পরে, “Next” এবং তারপর “Agree” বোতামে ক্লিক করুন। আপনার নতুন ইমেইল ঠিকানা তৈরি হয়ে যাবে।

এইভাবে, আপনি সহজেই একটি ইমেইল ঠিকানা তৈরি করতে পারেন এবং ইমেইলের সুবিধা ভোগ করতে পারেন।

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Scroll to Top